হলিউডের জন্য ২০২০ মোটেও ভালো যায়নি

হলিউডের জন্য ২০২০ মোটেও ভালো যায়নি। অনেক ভালো মুভি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।তবে এর মধ্যেও এমন কিছু মুভি এসেছে যা ২০২০ সালকে মুভির জন্য পুরোপুরি খারাপ বছর হতে দেয়নি। এর মধ্যে সেরা ৫টি নিয়েই কথা বলব।

কলকাতা খিদিরপুর ডক এলাকা পোর্ট এলাকা তাই সেখানে ক্রিমিনাল দের ছড়াছড়ি. আর সেই এলাকার ই এক বিশাল সিন্ডিকেট মাফিয়া দের গল্প এই জুলফিকার একজন একচ্ছত্র সম্রাট সিন্ডিকেট এর আর বাকিরা তার গোলাম আর সহকর্মী আর সেই সহকর্মী দের মধ্যেই আবার যুদ্ধ।

বাংলার one of the finest মুভি হলো এটি মূলত 2016 সালে পুজোতে এই সিনেমা এর হাত ধরেই নতুন ভাবে কনটেন্ট নির্ভর সিনেমা এর নতুন যুগের সূচনা হয়েছিল ❤️❤️❤️ কলকাতা ইন্ডাস্ট্রি তে।

২০২০ মোটেও ভালো যায়নি

১।I’m thinking of Ending things(2020)
Genre:Psychological Thriller,Horror,Drama

বছরের সেরার তালিকায় রাখতে হলে এ মুভিটাকে নির্দিধায় রাখা যায়।নেটফ্লিক্সের গত বছরের এবং গত কয়েক বছরে হলিউডের বেস্ট মুভি বলা যায় এটিকে👌।আমরা যারা মাইন্ড বেন্ডিং মুভির তালিকায় Mulholland Drive,Fight club এসবকে রাখি সেখানে এই মুভিটিও জায়গা পেতে পারে। Gone Girl এর পর বোধহয় অনেকদিন পর কোনো মুভি মাথার চিন্তা নিয়ে খেলা করল বলে মনে হবে😮।দেখার পর আপনিও এটাকে সেরার লিস্টে রাখবেন।

২।The Father(2020)
Genre:Drama
অ্যান্থনি হপকিন্সের আরেকটি সেরা মুভি👌।এই লোকটা অনেকটা জ্যাক নিকোলসনের মতো।যখন কিছু নিয়ে আসে তখনই মনে জায়গা করে নেয়।এবারে বোধহয় আরেকবার অস্কার পেতে পারেন হপকিন্স।এই মুভিটিও তেমন।মুভিটা দেখে ইমোশনাল হয়ে যেতে পারেন😥।আপনার পছন্দের লিস্টেও জায়গা পেতে পারে এটি❤।

৩।Nomadland(2020)
Genre:Adventure,Drama
ফ্রান্সিস ম্যাকডোরম্যান্ড বোধহয় এবারও অস্কার নিয়ে যাবেন।কি অভিনয়টাই না করল👌!মুভিটি কিছুটা স্লো হলেও ওভারঅল ভালো লাগার মতো।

৪।Run(2020)
Genre:Thriller
“The best thriller of the year💥”।এই একটা লাইনই যথেষ্ট মুভিটি কতটা ভালো তা বোঝাতে।অনেকদিন পর হলিউডে একটা মনের মত থ্রিলার মুভি আসল,যার শুরু থেকে শেষ প্রতিটা মুহুর্ত সাসপেন্সে ভরা😮।যারা থ্রিলার মুভি খুঁজছেন তাদের জন্য বেস্ট অপশন হবে এই মুভিটি।এটা আমি সবাইকে হাইলি সাজেস্ট করব দেখার জন্য👍।

৫।The Way Back(2020)
Genre:Sports,Drama
বেন এফ্লেকের ক্যারিয়ার সেরা এবং অস্কার ডিজার্ভিং পারফরম্যান্স🔥।বেন এফ্লেকের ডিরেক্টর,রাইটার হিসেবে সুনাম হলেও অভিনয় নিয়ে মাঝেমধ্যেই সমালোচকদের কাছে হয়েছেন সমালোচিত।তবে এবার সমালোচকদেরই মন জয় করলেন বেন এফ্লেক।নিজের অভিনয় দক্ষতা দেখালো বেন এফ্লেক। অস্কার পাবে কিনা জানিনা তবে অস্কার পাওয়ার মতো ছিল তার অভিনয়👌।মুভিটি মোটামুটি হলেও এফ্লেকের ক্যারিয়ার বেস্ট অভিনয়ের জন্য মুভিটি দেখা উচিত বলে আমি মনে করি👍।

আচ্ছা তার মানে লাভ লেটার?

💥স্পয়লার অ্যালার্ট 💥

  • আপনি এখনো এই ৬০/৭০ বছরে চিঠিতে ঝাপসা হয়ে যাওয়া লেখা বুঝতে পারেন
  • কিছু চিঠির লেখা যদি পুরোটাই ধুয়ে যাও তাও সেটার লেখা আবার ও হুবহু লেখা যায়

সাউথ ইন্ডিয়ান কয়েকটি নামকরা মুভির নাম যদি আমরা বলি তার মধ্যে একটা হবে মালায়লাম মুভি “চার্লি”… মারা মুভিটা হলো সেই চার্লি মুভির রিমেক….আর রিমেকে যদি মাধবন আর শ্রদ্ধা শ্রীনাথের মতো কিছু অসাধারণ অভিনেতা অভিনেত্রী থাকেন তাহলে রিমেক মুভিকেও নতুন মুভির মতো ফ্লেভারফুল মনে হবে।

মারা মুভিটাও ঠিক তেমনি লেগেছে আমার কাছে…দেখে আসলে আপনার সেই বোরিং ফিলটা কাজ করবেনা যে আপনি রিমেক দেখতেছেন। ছোটবেলায় বাসে শোনা একটা সৈনিকের জীবনকাহিনীর গল্প এবং প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার নিজেই একটা অচেনা জায়গায় ঘুরতে।

যেয়ে ওয়াল পেইন্টিং এ সেই গল্পগুলোকে ছবির মাধ্যমে ফুটে উঠতে দেখে বিস্মিত এক মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন শ্রদ্ধা শ্রীনাথ আর সেই পেইন্টার হলো নায়ক মারান। আসলে এই ওয়াল পেইন্টিংগুলো আসলে কার জীবন থেকে নেওয়া এবং দিন শেষে কোথায় কার সাথে কার পরিসমাপ্তি হবে এটাই মূলত মুভির আকর্ষনকে ধরে রেখেছে।

এছাড়া তামিল ভাষা না বুঝলেও গানগুলোর সুর আর ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক আপনার মনে ধরবেই।অনেকের কাছে মুভিটা একটু স্লো মনে হলেও আস্তে আস্তে দেখবেন যে আমি মুভিটার মধ্যে ডুবে যাবেন এবং আপনার মন জয় করে নিবে মুভির কাহিনি এবং অভিনেতা অভিনেত্রীদের সাবলীল অভিনয়। লাভ স্টোরি জেনারের মুভি হিসাবে এবং চার্লি মুভির রিমেক হিসাবে মুভিটা তার দাম মান দুইটাই রেখেছে ।

তাই সময় করে দেখতে পারেন মুভিটা ♥️আশা করি ভালো লাগবে♥️

বাংলার সেরা মাল্টিস্টারার মুভি এটা। এমনকি আশ্চর্য হলো এইটা দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এ এই সিনেমা তে অভিনয় এর জন্য দেব কে best এক্টর এর অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। যেখানে প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী, কৌশিক সেন, যীশুর মতো অভিনেতা রাও নমিনেটেড ছিলেন।

দেব বুঝিয়ে ছিলেন যদি ভালো স্টোরি আর ডিরেক্টর পাওয়া যায় তবে সে ফাটিয়ে অভিনয় দিতে পারে। আর এই সিনেমা থেকেই দেব রিমেক কমার্শিয়াল সিনেমা থেকে বেরিয়ে কনটেন্ট নির্ভর কমার্শিয়াল সিনেমা তে মনোযোগ দেয়। যা তার স্টারডম কে গ্রাম মফস্সল থেকে বাড়িয়ে শহরে নিয়ে আসে ❤️❤️❤️সব মিলিয়ে 2016 সালের ব্লকবাস্টার এই সিনেমা #MustWatch বলা যায়।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *